দেশের জন্য না খেললে সেরা হয়ে লাভ কি, সাকিবকে খোচা পাপনের

রেকর্ড ভাঙা আর গড়ার খেলাটা সাকিব আল হাসানের জন্য নতুন কিছু নয়। ১৫ বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে অসংখ্য রেকর্ড গড়েছেন অভিজ্ঞ এই অলরাউন্ডার। ব্যাটে-বলে পারফর্ম করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিন সংস্করণ দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন তিনি।

বাংলাদেশের সর্বকালের সেরা তো বটেই বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডারদেরও একজন সাকিব। তবে সাম্প্রতিক সময়ে ছুটি নেয়ার প্রবণতা এবং টেস্টে কম খেলার কারণে সমালোচনায় পড়তে হয়েছে তাকে। এদিকে নাজমুল হাসান পাপন বরাবরই সাকিবকে বাংলাদেশের সেরা ক্রিকেটার বলেছেন। সাকিবকে সেরা বললেও প্রশ্ন তুলেছেন দেশের জন্য না খেললে সেরা হয়ে লাভ কি।

পরিবারের সবাই যুক্তরাষ্ট্রে থাকায় জৈব সুরক্ষা বলয়ের কারণে সব ফরম্যাটে খেলা বেশ খানিকটা কঠিন হয়ে গিয়েছে সাকিবের জন্য। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরার পর বাংলাদেশের খেলা আট টেস্টের মাঝে মাত্র তিনটিতে খেলেছেন সাকিব। বাকি পাঁচটির মাঝে দুটি হাতছাড়া করেছেন ইনজুরির কারণে। গত বছর শ্রীলঙ্কা সফরে টেস্ট খেলা বাদ দিয়ে আইপিএলে খেলতে যাওয়ায় সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন অভিজ্ঞ এই অলরাউন্ডার।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সাকিব নিজেও জানিয়েছেন, একসঙ্গে তিন ফরম্যাট খেলা প্রায় অসম্ভব। ইঙ্গিত দিয়েছিলেন টেস্ট ক্রিকেট ছাড়ার। তবে পাপন জানিয়েছেন, তার জানামতে সব ফরম্যাটেই খেলবেন সাকিব। সময় টিভিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে পাপন বলেন, ‘টেস্ট ক্রিকেট ছেড়ে দিতে পারে -এরকম আমরা শুনিনি মানে আমার সঙ্গে কোনো কথা হয়নি এমনকি কেউ বলেনি। তবে ওর ব্যাপারে একটা অনিশ্চয়তা তো আছেই।

কারণ, ও কখন খেলবে আর কখন খেলবে না -এটা নিয়ে সব সময়ই একটা অনিশ্চয়তা আছে আমাদের মধ্যে। আমি মনে করি এটি দলের জন্য তো খারাপই তেমনি ওর জন্যও খারাপ।’ ‘আমার সঙ্গে ওর সর্বশেষ যে কথা হয়েছে, যতদূর জানি এখন থেকে নিয়মিত খেলবে সব ফরম্যাটেই। আমরা সবসময় বলে আসছি নিঃসন্দেহে ও আমাদের সেরা খেলোয়াড়। কিন্তু সেরা খেলোয়াড় হয়ে লাভ নেই, যদি না খেলে দেশের জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.