পান্থের বিধ্বংসী সেঞ্চুরির ভূয়সী প্রশংসা করে যা বললেন শচীন!

কেপটাউনে ঋষভ পন্থের লড়াকু সেঞ্চুরি’র ভূয়সী প্রশংসা করলেন স্বয়ং “ক্রিকেটের ইশ্বর” শচীন তেন্ডুলকার‌। ম‍্যাচে ১৯৮ রানে অল আউট হয়ে যায় ভারত। সাউথ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ২১২ রানের লক্ষমাত্রা রেখেছে বিরাটরা।

সিরিজ ২-১ ব্যাবধানে জেতার দারুণ সুযোগ রয়েছে প্রোটিয়াস’দের কাছে। “ম‍্যাচের এমন গুরুত্বপূর্ণ সময় এমন একটা ইনিংস এক কথায় অসাধারণ। ওয়েল ডান পন্থ।” – এমনটা ট‍্যুইট করেন শচীন তেন্ডুলকর। পন্থ’কে অভিনন্দন জানিয়েছেন ভিভিএস লক্ষণ’ও, তিনি ট‍্যুইট করেন, “এর আগে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ডে সেঞ্চুরি করেছেন পন্থ। এবার কেপটাউনে যে ইনিংস টা খেললো সেটা কাউন্টার এ্যাটাকিংয়ের সেরা নিদর্শন। ওর ইনিংস’টা ভারত’কে খেলার মধ্যে রাখলো। অসাধারণ ”

প্রসঙ্গত, কেপটাউন সাক্ষী থাকলো ঋষভ পন্থের দুরন্ত ব‍্যাটিংয়ের, মুলত তার করা অপরাজিত শত‍রানের উপর নির্ভর ক‍রে চলতি কেপটাউন টেস্টে সাউথ আফ্রিকা’কে ২১২ রানের লক্ষ‍্যমাত্রা দিলো ভারতীয় ক্রিকেট দল। এদিন ১৯৮ রানে অল আউট হয়ে যায় ভারত, সাউথ আফ্রিকা’কে এখন জয়ের জন্য তুলতে হবে ২১২ রান। ম‍্যাচ জিতলেই ২-১ ব‍্যাবধানে সিরিজ পকেটস্থ করবে তারা।

লাঞ্চের পর প্রথমেই হোচট খায় ভারত, আউট হয়ে যান ভারত অধিনায়ক কোহলি। লুঙ্গি এনগিদি তুলে নেন এই গুরুত্বপূর্ণ উইকেট, ভারতের স্কোর হয়ে দাড়ায় ১৫২/৫। এরপর একে একে ফিরে যান অশ্বিন, শার্দুল। দ্বিতীয় সেশনে দুটো উইকেট তুলে নেন জানসেন। উইকেট পান রাবাদা’ও। ১৯৮ রানে গুটিয়ে যায় ভারত। এদিন শুরু’তে টানা দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গেছিলো ভারতীয় ক্রিকেট দল। খেলার শুরু’তে রাহানে, পূজারার উইকেট হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে গেছিলো

ভারতীয় দল,যার জেরে খানিকটা চাপে পরে যায় টিম ইন্ডিয়া। এরপর ঋষভ পন্থের সাথে জুটি বেধে ভারতের টেস্ট অধিনায়ক বিরাট ইনিংস মেরামতের কাজ শুরু করেন। লাঞ্চ ব্রেকে যাওয়ার আগে ভারতের স্কোর ছিলো ১৩০/৪। লিড পেয়েছিলো ১৪৩ রানে। ক্রিজে অপরাজিত ছিলেন ঋষভ পন্থ (৫১*) এবং বিরাট কোহলি (২৮*)। পঞ্চম উইকেটে দুই ব‍্যাটার জুড়েছিলেন৭২ রান। ৫৭/২, স্কোরে খেলা শুরু করে ভারত এদিন, সকালের দ্বিতীয় বলে মার্কো জেনসেন তুলে নেন পূজারা’র উইকেট।

নজরকাড়া ক‍্যাচে পূজারা’কে ফেরান পিটারসেন। পরবর্তী ওভারে রাবাদা উইকেট তুলে নেন রাহানের (১)। দলে রয়েছে হানুমা বিহারী এবং শ্রেয়স আইয়ারের মতো যোগ‍্য ব‍্যাটার’রা তারপরও কেনো টিম ম‍্যানেজমেন্টের এই দুই ক্রিকেটারের উপর আগাধ আস্থা দেখাচ্ছে, ইতিমধ্যে উঠেছে প্রশ্ন। এরপর দলের স্কোর হয়ে দাড়ায় ৫৮ রান, ৪ উইকেট খুইয়ে। এরপর রাবাদা, জানসেনের স্পেল দারুণ সামাল দিয়েছিলো কোহলি – পন্থ জুঁটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *