‘অচল’ ডমিঙ্গোই থাকছেন প্রধান কোচ!

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ফাস্ট বোলিং কোচের দায়িত্ব ছেড়ে দিয়েছেন ওটিস গিবসন। ২০২০ সালে জানুয়ারিতে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের বোলিং কোচ হিসেবে দায়িত্ব পান ওয়েস্ট ইন্ডিজের ফাস্ট বোলার ওটিস গিবসন।

তবে চলতি মাসে বাংলাদেশের নিউ জিল্যান্ড সফরের আগে গিবসনের সঙ্গে আর চুক্তির মেয়াদ বাড়ায়নি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। বাংলাদেশ থেকে ইতিবাচক সাড়া না পাওয়ায় বাংলাদেশের চাকরি ছেড়ে পাকিস্তান সুপার লিগে যোগ দিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই কিংবদন্তি। তাকে বোলিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে পিএসএলের দল মুলতান সুলতানস। দলের সহকারি কোচ এবং বোলিং কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন তিনি।

তবে এখনই প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোকে বিদায় বলছে না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভরাডুবির পর পাকিস্তানের বিপক্ষে সাম্প্রতিক ব্যর্থতায় রাসেল ডমিঙ্গোর চেয়ার এমনিতেই নড়বড়ে ছিল। গেল বছরের নভেম্বরেই ডমিঙ্গোকে ছাঁটাই করার গুঞ্জন উঠেছিল। নিউজিল্যান্ড সিরিজের পরই তাকে ছেঁটে ফেলা হবে বলে ধারণা করা হচ্ছিল। কিন্তু সিরিজটি শেষ হতেই জানা গেল উল্টো খবর। বৃহস্পতিবার বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্সের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন,

আপাতত রাসেল ডমিঙ্গোই থাকছেন, কারণ বিকল্প কারও নাম বোর্ডের হাতে নেই। জালাল ইউনুস বলেন, “আমাদের হাতে এখন হেড কোচ নেই। জেমি সিডন্সকে ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে নিয়ে এসেছি। এই মাসের শেষে বা ফেব্রুয়ারির শুরুতে চলে আসবে। হেড কোচ কিন্তু এখন হাতে নেই।” তবে প্রধান কোচ পরিবর্তনের সম্ভাবনা একেবারে উড়িয়ে দেননি এই শীর্ষস্থানীয় বোর্ড কর্তা। তিনি জানান, “যদি কোনো পরিকল্পনা থাকে,

উনি (বিসিবি সভাপতি) বলেছেন জানুয়ারিতে পরিবর্তন হতে পারে। নির্বাচকের মত পদও বোর্ড থেকে সিদ্ধান্ত হয়। এজন্য আমাদের বোর্ডের সিদ্ধান্তের অপেক্ষা করতে হবে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *