এই ৪ ক্রিকেটারকে কিনতে টাকার বস্তা নিয়ে নামতে পারে কলকাতা!

আইপিএলের ১৪ আসরের মধ্যে দুবার শিরোপা ঘরে তোলার যোগ্যতা অর্জন করেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। তাছাড়া বিগত মরশুমে চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে ফাইনাল খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স।

আইপিএলের ইতিহাসে একাধিক মাইলফলক স্পর্শ করেছে কলকাতা। ইতিমধ্যে ২০২২ আইপিএল উপলক্ষে রিটেনশন ক্রিকেটারের তালিকা প্রকাশ করেছে তারা। ভারতীয় প্রিমিয়ার লিগের সফলতম দলগুলোর মধ্যে কলকাতা নাইট রাইডার্স অন্যতম। আইপিএলের ১৪ আসরের মধ্যে দুবার শিরোপা ঘরে তোলার যোগ্যতা অর্জন করেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। তাছাড়া বিগত মরশুমে চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে ফাইনাল খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স।

আইপিএলের ইতিহাসে একাধিক মাইলফলক স্পর্শ করেছে কলকাতা। ইতিমধ্যে ২০২২ আইপিএল উপলক্ষে রিটেনশন ক্রিকেটারের তালিকা প্রকাশ করেছে তারা। লক্ষ্য এখন মেগা অকশন। প্রথমেই অধিনায়ক খুঁজে নেওয়ার তাগিদ রয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্সের। দেখে নিন, এবারের মেগা অকশনে কোন ৪ ভারতীয় ক্রিকেটারের পেছনে দৌড়াতে পারে কলকাতা নাইট রাইডার্স-

১. শ্রেয়াস আইয়ার: আইপিএল ২০২২-এর মেগা অকশনে কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্রথম এবং প্রধান লক্ষ্য একজন যোগ্য অধিনায়ক খুঁজে বের করা। বিগত মরশুমে ইংল্যান্ডের অধিনায়ক ইয়ন মরগান এই দায়িত্ব পালন করলেও ব্যাট হাতে ব্যর্থতার চরম সীমা লংঘন করেছিলেন তিনি। অধিনায়ক হিসেবে ইতিমধ্যে শ্রেয়াস আইয়ার নিজেকে বারবার প্রমাণ করেছেন। তাই কলকাতা নাইট রাইডার্স প্রথম পছন্দের ক্রিকেটার হিসেবে শ্রেয়াস আইয়ারকে দলে অন্তর্ভুক্ত করতে পারে।

২. হার্সেল প্যাটেল: বিগত আইপিএলের আসরে আগুন ঝরানো বোলিং করে সংবাদ শিরোনামে উঠে এসেছিলেন ভারতীয় এই পেস বোলার। তার পুরোনো শিবির তাকে রিলিজ করেছে। এদিকে কলকাতা নাইট রাইডার্সের পেস বোলিং বিভাগ ডেথ ওভারে বিগত কয়েক আইপিএল আসরে সবচেয়ে বেশি রান দেওয়ার রেকর্ড গড়েছে। তাই হার্সেল প্যাটেল কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্রধান অস্ত্র হতে পারেন। বিগত আইপিএলের আসরে তিনি বল হাতে ৩২ উইকেট দখল করেছিলেন।

৩. শুভমান গিল: কলকাতা নাইট রাইডার্স তাকে রিলিজ করলেও মেগা অকশনে ভারতীয় এই তরুণ ক্রিকেটারের পেছনে কোটি টাকা খরচ করতেও দ্বিধাবোধ করবে না। বিগত কয়েক বছর ধরে কলকাতা নাইট রাইডার্সের জার্সিতে দুর্দান্ত ব্যাটিং করছেন শুভমান গিল। বিগত মরশুমেও তার ব্যাট থেকে লম্বা ইনিংস দেখেছে ক্রিকেট বিশ্ব। তাই তাকে প্রত্যাবর্তন করতে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা করবে কলকাতা নাইট রাইডার্স, এমনটাই মনে করছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা।

৪. রাহুল ত্রিপাঠী: কলকাতা নাইট রাইডার্সের মিডল অর্ডারের নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান ছিলেন রাহুল ত্রিপাঠী। তবে বিসিসিআইয়ের নিয়ম মানতে গিয়ে বাধ্য হয়ে তাকেও রিলিজ করতে হয়েছে কলকাতা শিবিরকে। গত আইপিএলের আসরে তার ব্যাট থেকে জয়সূচক ছক্কা টি এসেছিল। যার ফলে কলকাতা নাইট রাইডার্স ফাইনাল খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছিল। মেগা অকশনে রাহুল ত্রিপাঠীর দিকেও দৃষ্টি থাকবে কলকাতার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *