কিভাবে চার-ছক্কা হাকাতে হয় ব্যার্থ কোহলী-ম্যাক্সওয়েলদের শেখালেন বাটলার!

বল হাতে প্রসিদ্ধ কৃষ্ণ এবং ব্যাট হাতে জস বাটলারের দাপটে উড়ে গেল বেঙ্গালুরু। এ বারও আইপিএল জেতার স্বপ্নপূরণ হল না বিরাটদের। এ বারের আইপিএল থেকে ছিটকে গেল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর।

ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে হেরে গেলেন বিরাট কোহলীরা। জস বাটলারের দাপটে স্বপ্নভঙ্গ তাঁদের। এই আইপিএলে চতুর্থ শতরান করে ফেললেন তিনি। ফাইনালে উঠতে রাজস্থান রয়্যালসের প্রয়োজন ছিল ১৫৮ রান। শুক্রবার বিরাট কোহলী মাত্র সাত রান করে আউট। ত্রাতা সেই রজত পাটীদার। তাঁর ব্যাটে ভোর করেই ১৫৭ রান তুলল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর।

শুক্রবার ৫৮ রান করেন পাটীদার। ফ্যাফ ডুপ্লেসি করেন ২৫ রান। গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ১৩ বলে ২৪ রান করেন। আর কোনও ব্যাটার সে ভাবে রানই করতে পারেননি। বাংলার শাহবাজ আহমেদ ১২ রান করে অপরাজিত থাকেন। রাজস্থান ভাল বল করলেও ১৫ রান অতিরিক্ত দেয় তারা। না হলে আরও কম রানে আটকে রাখার সুযোগ ছিল তাদের কাছে। রাজস্থানের হয়ে গত ম্যাচে শেষ ওভারে তিনটি ছয় খেয়ে ম্যাচ হারা প্রসিদ্ধ কৃষ্ণ বেঙ্গালুরুর তিনটি উইকেট তুলে নিয়েছেন।

তিনটি উইকেট পেয়েছেন ওবেড ম্যাকয়ও। যুজবেন্দর চহাল ছাড়া কেউই সে ভাবে রান দেননি। ট্রেন্ট বোল্ট এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিন একটি উইকেট উইকেট নেন। চহাল কোনও উইকেটও পাননি। রাজস্থান দলে রয়েছেন জস বাটলার। এ বারের আইপিএলে তিনটি শতরান করা ইংরেজ ব্যাটার স্বমূর্তি ধরলে বেঙ্গালুরুর পক্ষে এই ম্যাচ জেতা কঠিন হবে। তবে বিরাটদের দলেও রয়েছেন হর্ষল পটেল, মহম্মদ সিরাজ, ওয়ানিন্দু হাসরঙ্গের মতো বোলার।

মাত্র ১৫৭ রান তোলে বেঙ্গালুরু। বাটলারের বিরুদ্ধে সেই রান খুবই কম ছিল। ইংরেজ ব্যাটার অপরাজিত থাকলেন ১০৬ রানে

Leave a Reply

Your email address will not be published.