এটা পাকিস্তানের জার্সি নাকি ফলের দোকান! চরম সমালোচনা

কানেরিয়া বলেন, ‘মনে হয় ওরা খরমুজ আর তরমুজ একসঙ্গে মিশিয়ে ফেলে জার্সি তৈরি করেছে।’ আর কয়দিন পরই মাঠে গড়াবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। বিশ্বকাপের দল গঠন প্রায় শেষ, এখন চলছে পালাক্রমে জার্সি উন্মোচন।

অস্ট্রেলিয়া, ভারত, পাকিস্তানের মতো পরাশক্তি দলগুলো ইতোমধ্যে তাদের বিশ্বকাপ জার্সি প্রকাশ করেছে। তবে পাকিস্তানের বিশ্বকাপ জার্সি দেখে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে ভক্ত-সমর্থকদের মধ্যে। সাবেক এক ক্রিকেটার এমনও বলেছেন- এটা কি পাকিস্তানের জার্সি নাকি ফলের দোকান! কেউ আবার জার্সিকে বলছেন তরমুজ। জার্সিকে তরমুজের সাথে তুলনা করছিলেন অনেকে, এবার কানেরিয়া বললেন ‘ফলের দোকান’!

পাকিস্তান তাদের বিশ্বকাপ জার্সি প্রকাশ করতেই হাসির রোল পড়ে গিয়েছিল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। বিদেশের সমর্থকরা তো বটেই, পাকিস্তানের সমর্থকদের বড় একটি অংশও এই জার্সি পছন্দ করেননি। সবুজ জার্সিতে হলুদ ডোরাকাটা দাগকে অনেকে তরমুজের সাথে তুলনা করছেন। রসিকতা করে বলছেন, তরমুজ থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই এই জার্সি ডিজাইন করা হয়েছে। কেউ কেউ আবার বলছেন- বাবরদের নতুন জার্সি চুইংগামের মতো।

পাকিস্তানের সাবেক স্পিনার দানিশ কানেরিয়ার একদমই পছন্দ হয়নি এই রঙচঙে জার্সি। তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানের এই জার্সির মাথামুণ্ডু বুঝতে পারছি না। দেখে ঠিক তরমুজের মতো লাগছে। মোবাইলে ফ্রুট নিঞ্জা বলে একটা গেম রয়েছে। সেখানে ফল কাটতে হয়। মনে হয় ওরা খরমুজ আর তরমুজ একসঙ্গে মিশিয়ে ফেলে জার্সি তৈরি করেছে। পরিষ্কার সবুজ বা গাঢ় সবুজ হওয়া দরকার ছিল। জার্সি দেখে মনে হচ্ছে ফলের দোকানের সামনে দাঁড়িয়ে আছি।’

পাকিস্তান এতদিন সাধারণত গাঢ় সবুজ রঙের জার্সি পরে খেলেছে। এবার চিরায়ত ধারা থেকে বের হয়ে এসে জার্সিতে প্রাধান্য পেয়েছে হালকা সবুজ রঙ। বুকের ওপর সাদা রঙে লেখা হয়েছে দেশের নাম। দুই হাতের বর্ডারেও হালকা সবুজ রঙের ছোঁয়া আছে। কলার টিশার্টের কলারের মতো। পুরো টিশার্ট জুড়ে গাঢ় সবুজ আর টিয়া রঙের স্ট্রাইপ। যদিও এই জার্সি নকশা করার পেছনে থিম কি ছিল, তা জানা যায়নি।

ডায়াগোনাল প্যাটার্ন সমৃদ্ধ এই জার্সিকে পিসিবি থান্ডার জার্সি হিসেবে আখ্যা দিয়েছে। বাবরদের পাশাপাশি নারী ক্রিকেটাররাও এই জার্সি ব্যবহার করবেন। পিসিবি যে ছবি ও ভিডিও পোস্ট করেছে, তাতে বাবর আজম, নাসিম শাহ, হারিস রউফদের নতুন জার্সি গায়ে অবশ্য বেশ প্রাণবন্ত দেখাচ্ছে

Leave a Reply

Your email address will not be published.