দ্বিতীয় ম্যাচে খেলবেন কিনা বুমরাহ, জানিয়ে দিলেন সূর্যকুমার

জসপ্রীত বুমরাহ প্রসঙ্গে সূর্যকুমার যাদব বলেন, ‘যে কোনও খেলোয়াড়ের বিষয়ে আমাকে টিম ম্যানেজমেন্টের পরিকল্পনা নিতে হবে। এ বিষয়ে কোনও তথ্য নেই। এটি আমার বিভাগ নয়। এই প্রশ্নের উত্তর ফিজিও এবং টিম ম্যানেজমেন্ট দিতে পারেন।’

২৩ সেপ্টেম্বর অর্থাৎ শুক্রবার নাগপুরে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে নামবে টিম ইন্ডিয়া। টিম ইন্ডিয়ার জন্য এটা একটা ডু অর ডাই ম্যাচ, কারণ ভারত এই ম্যাচ হারলে সিরিজ হাতছাড়া হয়ে যাবে। অন্যদিকে ফিঞ্চরা এই ম্যাচ জিতলে অস্ট্রেলিয়ার নামে সিরিজটি চলে যাবে। আর ভারত ম্যাচ জিতলে সিরিজে সমতায় ফিরবেন টিম ইন্ডিয়া। এমন অবস্থায় সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে।

সিরিজের শেষ ম্যাচটি হায়দরাবাদে অনুষ্ঠিত হবে। যদি দ্বিতীয় ম্যাচে ভারত জেতে তাহলে শেষ ম্যাচটি হবে সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচ। যেখানে দেখা যাবে ভিন্ন রোমাঞ্চ। তবে এর আগে টিম ইন্ডিয়ার জন্য অর্ধ-অসম্পূর্ণ সুখবর দিয়েছেন সূর্যকুমার যাদব। জসপ্রীত বুমরাহের ফিটনেস সম্পর্কে একটি আপডেট দিয়েছেন ভারতের বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান সূর্যকুমার যাদব। ভারত প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে জসপ্রীত বুমরাহকে মিস করেছিল,

কারণ তিনি চোট কাটিয়ে দলে ফিরলেও ম্যাচ খেলার জন্য পুরোপুরি ফিট ছিলেন না। এমন পরিস্থিতিতে তিনি প্রথম ম্যাচ খেলতে পারেননি। তবে সূর্যকুমার যাদব এখন জসপ্রীত বুমরাহর ফিটনেস নিয়ে উদ্বেগ উড়িয়ে দিয়েছেন এবং বলেছেন যে চিন্তার কোনও কারণ নেই। পিঠের চোট কাটিয়ে মাঠে নামতে প্রস্তুত ফাস্ট বোলার জসপ্রীত বুমরাহ। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচের আগে অনুষ্ঠিত ভার্চুয়াল প্রেস কনফারেন্সে, যখন সূর্যকুমার যাদবকে বুমরাহের ফিটনেস

এবং টি-টোয়েন্টি দলে উমেশ যাদবকে নিয়ে দলের পরিকল্পনা কী জানতে চাওয়া হয়, তখন সূর্যকুমার যাদব বলেন, ‘যে কোনও খেলোয়াড়ের বিষয়ে আমাকে টিম ম্যানেজমেন্টের পরিকল্পনা নিতে হবে। এ বিষয়ে কোনও তথ্য নেই। এটি আমার বিভাগ নয়। এই প্রশ্নের উত্তর ফিজিও এবং টিম ম্যানেজমেন্ট দিতে পারেন।’ জসপ্রীত বুমরাহ সম্পর্কে তিনি আরও বলেন, ‘দলের পরিবেশ ভালো এবং সব খেলোয়াড়ই ফিট এবং দ্বিতীয় ম্যাচের জন্য প্রস্তুত।’

মরাহকে নিয়ে আবারও প্রশ্ন করা হলে সূর্য বলেন, ‘সে পুরোপুরি প্রস্তুত, চিন্তা করবেন না। সমস্যা।’ এই সংবাদ সম্মেলনে সূর্যকুমার যদব ভারতীয় বোলারদের রক্ষা করতে তাদের পাশে দাঁড়িয়ে বলেন, ‘আসলে শেষ ম্যাচের পর আমাদের কোনও আলোচনা হয়নি, কিন্তু মাঠে শিশির ছিল। অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং অর্ডারকে কৃতিত্ব দিতে হবে, তারা আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলেছিল।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.